Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সিটিজেন চার্টার

সিটিজেন চার্টার

     নতুন সংযোগ গ্রহণ পদ্ধতি

* ওয়ান ষ্টপ সার্ভিস সেন্টার/গ্রাহক সেবাকেন্দ্র থেকে নতুন সংযোগ আবেদন পত্র পাওয়া যাবে।

* আবেদন পত্রটি যথাযথ নতুন করে নির্ধারিত আবেদন ফি নিদিষ্ট ব্যাংক বুথ/শাখা অথবা গ্রাহক সেবা কেন্দ্র/দপ্তরে জমা প্রদান করে জমা রশিদ ও প্রয়োজনীয় দলিলাদি সহ গ্রাহক সেবা কেন্দ্রে জমা করলে একটি নিবন্ধন নম্বর সহ পরবর্তী আগমনের তারিখ জানানো হবে।

* পরবর্তী আগমনের তারিখে যোগাযোগ করলে ডিমান্ড নোট ও প্রাককলন ইস্যু করা হবে।

* গ্রাহকের সেবা কেন্দ্র সংলগ্ন ব্যাংক বুথ/নির্ধারিত ব্যাংক শাখা/দপ্তরে ডিমান্ড নোটের উল্লেখিত টাকা জমা পূর্বক জমার রশিদ প্রদর্শন করলে সংযোগ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বিদ্যুৎ সংস্থা কর্তৃক সরবরাহকৃত অথবা বিদ্যুৎ সংস্থা কর্তৃক অনুমোদিত ক্রয়কৃত মিটার গ্রাহক জমা দিলে মিটার কাড সহ মিটার ১৫ (পনের) দিনের মধ্যে গ্রাহকের আঙ্গিনায় স্থাপন করা হবে। যদি সংযোগ প্রদান সম্ভবপর না হয় তবে তার কারণ জানিয়ে একটি পত্র দেওয়া হবে।

* পরবর্তী মাসের বিলিং সাইকেল অনুযায়ী গ্রাহকের প্রথম মাসের বিল জারী করা হবে।

* ওয়ান ষ্টপ সার্ভিস সেন্টার/গ্রাহক সেবাকেন্দ্র থেকে নতুন সংযোগ গ্রহনের নিয়মাবলী ও এতদ্বসংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্যাবলী সমন্বিত একটি পুসিত্মকা প্রয়োজন বোধে নির্ধারিত মূল্য পরিশোধ সাপেক্ষে সংগ্রহ করা যাবে।

নতুন সংযোগের ফি

* সিঙ্গেল ফেজ ২৩০ ভোল্ট সংযোগের জন্য ৫০০/= - ৭০০/=

আনুমানিক টাকা (মালামাল বাদে)

থ্রি ফেইজ (৪ তার) ৪০০ ভোল্ট সংযোগের জন্য ১২০০/= - ১৫০০/= আনুমানিক (মালামাল বাদে)

থ্রি ফেইজ (১১০০০ ভোল্ট) সংযোগের জন্য ৫০০০/= - ৭০০০/= আনুমানিক (মালামাল বাদে) অস্থায়ী সংযোগের জন্য ২৫০/= টাকা

গ্রাহকের অনুরোধে চুক্তি পরিবর্তন/পুনঃ ক্ষমতায়নঃ ১৫০.০০ টাকা।

 বিঃ দ্রঃ সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী টাকার পরিমান পরিবর্তন হতে পারে।

সংযোগ বিচ্ছিন্নকরন পুনঃ সংযোগ চার্জ

(ক) বিলপরিশোধেঅক্ষমতারকারনেসংযোগবিচ্ছিন্নেরক্ষেত্রে

গ্রাহক শ্রেণীঃ এ, বি, সি, ডি, ই, জে (এক ফেজ) টাঃ ৬০০.০০

গ্রাহক শ্রেণীঃ এ, বি, সি, ডি, ই, জে (তিন ফেজ) টাঃ ১২০০.০০

গ্রাহক শ্রেণীঃ এফ, জি, এইচ, আই টাঃ ৬,০০০.০০।

(খ) সরবরাহ স্থপিত করনের জন্য অনুরোধের মাধ্যমে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করন ও পুনঃ সংযোগঃ 

 

গ্রাহক শ্রেণীঃ এ, বি, সি, ডি, ই, জে (এক ফেজ) টাঃ ১২০.০০

গ্রাহক শ্রেণীঃ এ, বি, সি, ডি, ই, জে (তিন ফেজ) টাঃ ২৫০.০০

গ্রাহক শ্রেণীঃ এফ, জি, এইচ, আই টাঃ ৬,০০.০০।

     নতুন সংযোগের জন্য জামানতের পরিমানঃ

 

গ্রাহক শ্রেণীঃ এ, ডি এবং

 

একফেজ - টাঃ ৩৭৫.০০ প্রতি কিঃ ওঃ অনুমোদিত চাহিদার জন্য।

তিন ফেজ - টাঃ ৫,৫০.০০ প্রতি কিঃ ওঃ অনুমোদিত চাহিদার জন্য।

গ্রাহক শ্রেণীঃ বি, সি, এফ, জি, এইচ, আই এবং জে - টাঃ ৬০০.০০ প্রতি কিঃ ওঃ অনুমোদিত চাহিদার জন্য।

গ্রাহক সমস্যা

 সম্মানিত গ্রাহকগন তাদের সমস্যাটি টিএন্ডটি/মোবাইল অথবা ব্যক্তিগত উপস্থিতির মাধ্যমে ওয়ান ষ্টপ সার্ভিস সেন্টারে, ফিডারের মাঝামাঝি বরাবরে স্থাপিত গ্রাহক সেবা কেন্দ্রে, ফিডারের বিভিন্ন স্থানে (গ্রাহকদের দোরগোড়ায়) রক্ষিত গ্রাহক সেবা বক্সে অথবা সংশ্লিষ্ট বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে জানাতে পারবেন।

* সপ্তাহের ৭ (সাত) দিনই সমস্যা জানাতে পারবেন।

লোড পরিবর্তন পদ্ধতি

 * নতুন পরিবর্তন ফি প্রদান করতে হবে।

* চুক্তি পরিবর্তন ফি প্রদান করতে হবে।

* লোড বৃদ্ধির জন্য প্রযোজ্য অনুযায়ী কিলোওয়াট প্রতি বিদ্যমান হারে জামানত প্রদান করতে হবে।

* অতিরিক্ত লোডের জন্য সার্ভিস তার/মিটার বদলানোর প্রয়োজন হলে উক্ত ব্যয় গ্রাহকের বহন করতে হবে।

* প্রাককলন ও জামানতের অর্থ জমা দানের ৭ (সাত) দিনের মধ্যে লোড বৃদ্ধি কার্যকর করা হবে। যদি লোড বৃদ্ধি করা সম্ভবপর না হয় তবে তার কারণ জানিয়ে একটি পত্র দেয়া হবে।

গ্রাহকের নাম পরিবর্তন পদ্ধতি

গ্রাহক ক্রয় সুত্রে/ওয়ারিশ সূত্রে/লিজ সুত্র জায়গা বা প্রতিষ্ঠানের মালিক হলে সকল দলিলের সত্যায়িত ফটোকপি ও সর্বশেষ পরিশোধিত বিলের কপিসহ নির্ধারিত ফি ব্যাংকে জমা করে আবেদন করতে হবে। সরেজমিনে তদন্ত করে নাম পরিবর্তনের জন্য বিদ্যমান হারে জামানত প্রদান করতে হবে। গ্রাহক জামানত বাবদ উক্ত বিল নির্ধারিত ব্যাংকের বুথ/শাখা/দপ্তরে পরিশোধ করে তার রশিদ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে জমা দিলে ৭ (সাত) দিনের মধ্যে নাম পরিবর্তন কার্যকর করা হবে। আবেদীত স্থাপনায় কোন বিদ্যুৎ বিল/পাওনা বকেয়া থাকা চলবে না।

বিদ্যুৎ বিভ্রাট/সমস্যা জানানোর পদ্ধতি

 

বিদ্যুৎ সরবরাহ ইউনিটের নিদিষ্ট গ্রাহক সেবা কেন্দ্র ওয়ান ষ্টপ সার্ভিসে বিদ্যুৎ বিভ্রাট/বিচ্যুতির খবর জানালে আবেদন নং ও নিষ্পত্তির সম্ভব্য সময় জানিয়ে দেয়া হবে। নম্বরের ক্রমানুসারে বিদ্যুৎ বিভ্রাট/বিচ্যুতি দূরীভূত করার লক্ষে ২৪ ঘন্টার মধ্যে নিষ্পত্তির ব্যবস্থা নেয়া হবে। কোন কোন ক্ষেত্রে যদি নির্ধারিত সময়ে বিভ্রাট দূরীভূত করা সম্ভব না হয় তবে তার কারণ গ্রাহককে জানিয়ে দেয়া হবে।

বিদ্যুৎ বিভ্রাট/বিচ্যুতি নিরসন সময়কালঃ

গ্রাহক কর্তৃক বিদ্যুৎ বিভ্রাটের বিষয়টি সংশিস্নষ্ট ওয়ান ষ্টপ সার্ভিস সেন্টার/গ্রাহক সেবাকেন্দ্রে জানানোর ২৪ ঘন্টার মধ্যে নিরসন করা হবে। উক্ত সময়ের মধ্যে নিরসন করা সম্ভব পর না হলে গ্রাহককে কারণ অবহিত করা হবে।

 

বিল পরিশোধঃ

* গ্রাহক সেবা কেন্দ্র সংলগ্ন ব্যাংক বুথ/নির্ধারিত ব্যাংক/দপ্তরে গ্রাহক বিল পরিশোধ করতে পারবেন।

* প্রি-পেমেন্ট মিটারিং এর আওতাভূক্ত এলাকায় ভেন্ডিং স্টোর এ গিয়ে Card/key No. সহ স্লিপ সংগ্রহের মাধ্যমে আগাম বিল পরিশোধ/Recharge করা যাবে।

* ইলেকট্রিসিটি বিল পে-এর আওতাভূক্ত এলাকায় Point of sale (POS) মাধ্যমে বিল পরিশোধ করা যাবে।

* ইন্টারনেট থেকে বিল ডাউন লোড করে (প্রক্রিয়াধীন) বিল পরিশোধ করা যাবে।

* অনলাইন (প্রক্রিয়াধীন) বিল পরিশোধ করা যাবে।

বিল সংক্রামত্ম  ব্যাংক সমূহঃ

বিল সংক্রামত্ম যে কোন সমস্যা যেমনঃ চলতি মাসের বিল পাওয়া যায়নি, বকেয়া বিল, অতিরিক্ত বিল, বকেয়া পরিশোধ সংক্রান্ত প্রত্যয়ন পত্র পাওয়া যায়নি, ইত্যাদির জন্য ওয়ান ষ্টপ সার্ভিস সেন্টার/গ্রাহক সেবা কেন্দ্রে যোগাযোগ করলে তাৎক্ষনিক সমাধান সম্ভব হলে তা নিষ্পত্তি করা হবে। অন্যথায় একটি নিবন্ধন নম্বর দিয়ে পরবর্তী যোগাযোগের সময় জানিয়ে দেয়া হবে এবং পরবর্তী ৭ (সাত) দিনের মধ্যে নিস্পত্তির ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

পাওয়ার ফ্যাক্টর শুদ্ধিকরন শাসিত্মমূলক হার নিরুপনঃ

শাসিত্মমূলক হারঃ যদি কোন গ্রাহক বৈদুত্যিক সুযোগ সুবিধা (ক) টেম্পারিং এর মাধ্যমে, সরাসরি সংযোগের মাধ্যমে প্রতরণামূলক ভাবে বিদ্যুৎ বব্যহার করিয়া থাকেন তবে তাহাকে সে ক্ষেত্রে প্রতরনা মূলক ভাবে ব্যবহৃত বিদ্যুতের অংমের জন্য প্রযোজ্য মূল্য হারের ৩ (তিন) গুন বেশী হারে বিল পরিশোধ করিতে হইবে। গ্রাহক কর্তৃক প্রতরানমুলক ভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারের সময় সীমা কোম্পানী চিহ্নিত বা নিরূপন করিতে না পারিলে এই রকম সময় সীমা কোম্পানীর বিচার বুদ্ধির মাধ্যমে নির্ধারন করা হবে। তবে কোন অবস্থায় এই সময় সীমা তিন মাসের কম হইবে না।

(খ) কোম্পানী দায়ী নহে এমন অবস্থায় কোন গ্রাহক তাহার চুক্তিবদ্ধ/অনুমোদিত চাহিদা হইতে বেশী লোড ব্যবহার করিলে তাহাকে চুক্তি ভঙ্গের জরিমানা স্বরূপ চুক্তিবদ্ধ/অনুমোদিত চাহিদার অতিরিক্ত ব্যবহৃত লোডের জন্য দ্বিগুন হারে ডিমান্ড চার্জ পরিশোধ করিতে হইবে। অননুমোদিত অতিরিক্ত লোড যে দিন হইতে নিয়মিত করা হইবে সেদিন থেকে স্বাভাবিক ভাবে ডিমান্ড চার্জের বিল করা হইবে।

পাওয়ার ফ্যাক্টর শুদ্ধিকরন (পি এফ সি)

বিদ্যুৎ সরবরাহের শর্তাবলী অনুযায়ী সরবরাহ পয়েন্টে মাসিক গড় পাওয়ার ফ্যাক্টর ০.৯৫ হইতে ১.০ এর মধ্যে রাখিতে অক্ষম হইলে এফ.জি.ও.এইচ শ্রেণীর গ্রাহকদের ক্ষেত্রে মাসিক গড় পাওয়ার ফ্যাক্টর ০.৯৫ Lag এর নীচে রাখার কারণে পাওয়ার ফ্যাক্টর শুদ্ধকরণ চার্জ প্রযোজ্য হইবে।

                                                            ০.৯৫

পাওয়ার ফ্যাক্টর শুদ্ধকরণ গুনিতক= --------------------------------------------

                                        গ্রাহক প্রামেত্ম পরিমাপের পর প্রাপ্ত গড় পাওয়ার ফ্যাক্টর

 

উপরোক্ত গুনিতকটি রেকর্ডকৃত কিওঘ এর গুনিতক হিসাবে ব্যবহার করিয়া বিলের ইউনিট নির্ধারন করিতে হইবে। যদি সরবরাহ পয়েন্টে পাওয়ার ফ্যাক্টর ০.৯৫ এর উপর হয় তাহা হইলে রেকর্ডকৃত এনার্জি অনুযায়ী গ্রাহককে বিল করা হইবে।